‘গলি মারো’ শ্লোগানে গ্রেফতার ৩ বিজেপি কর্মী।

ভোটমুখী পশ্চিমবঙ্গে শুভেন্দু অধিকারীর সমাবেশে বিজেপি কর্মীদের “তৃণমূল কে গদ্দারো কো, গলি মারো এস***এন কো” স্লোগান তুলতে দেখা যাওয়ার একদিন পর বৃহস্পতিবার হুগলি জেলা যুব শাখার প্রধান সুরেশ সাহু সহ তিনজন দলীয় কর্মীকে গ্রেফতার করা হয়।

বুধবার পশ্চিমবঙ্গের হুগলি জেলায় সদ্য বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারীর রোড-শোতে উস্কানিমূলক স্লোগান তুলতে গিয়ে কয়েকজন বিজেপি কর্মী ক্যামেরায় ধরা পড়েন।

শহরের রথতলা এলাকায় অধিকারী, হুগলির সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায় ও রাজ্যসভার সদস্য স্বপন দাশগুপ্তকে নিয়ে ট্রাকের পিছনে বিজেপির পতাকা ও ত্রিবর্ণ রঙের স্লোগান উঠেছিল বলে অভিযোগ।

বিজেপি মুখপাত্র শমীক ভট্টাচার্য বলেন, বিজেপির পতাকা হাতে অংশগ্রহণকারীদের উত্থাপিত স্লোগানকে দল সমর্থন করে না।

দক্ষিণ কলকাতার এক সমাবেশে অভিযুক্ত তৃণমূল সমর্থকদের একদল অভিযুক্ত তৃণমূল সমর্থক স্লোগান দিতে দিতে এই ঘটনাটি ঘটেছে।

নিন্দা করে বাংলার মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম ইঙ্গিত দিয়েছেন যে এটা বহিরাগতদের কাজ হতে পারে।তিনি বলেন,”আমরা এটাকে একেবারেই সমর্থন করি না। প্রতিটি র ্যালিতে কিছু অতিরিক্ত উৎসাহী তরুণ সমর্থক আছে। কিন্তু আমরা এই ধরনের জিনিস সমর্থন করি না। এটা বিজেপির স্লোগান । আমি জানতে চেয়েছি তারা প্রকৃত তৃণমূল সমর্থক নাকি বহিরাগত যারা আমাদের মিছিলে ঢুকেছে। আমরা শান্তিতে বিশ্বাস করি,” । তৃণমূল কংগ্রেসের ‘শান্তি র ্যালি’কে কটাক্ষ করে বিজেপির রাষ্ট্রীয় ইউনিট বলেছে, তারা বিজেপির পতাকা ও পোস্টার ছিঁড়ে ফেলতে দেখেছে।

দক্ষিণ কলকাতায় শান্তি র ্যালিতে ‘গলি মারো এস****এন কো’র মতো স্লোগান শোনা যায়। এটা কি পিসির ‘শান্তির’ সংজ্ঞা? বিজেপির রাষ্ট্রীয় ইউনিট ভিডিওটি শেয়ার করে টুইট করেছে।

close