আবারও নির্ভয়ার স্মৃতি উত্তরপ্রদেশে!গণধর্ষিতার যৌনাঙ্গে রড ঢুকিয়ে খুন।

বিশ্বজিৎ দাস:-এখনও মানুষ ভুলে যায়নি নির্ভয়ার স্মৃতি।কয়েক মাস আগে ঘটে যাওয়া হাথরাসের ক্ষতও টাটকা হয়ে আছে। উত্তরপ্রদেশে এর মধ্যেই ফের গণধর্ষণের পর নৃশংসভাবে খুন করা হয়েছে।

৫০ বছরের এক মহিলাকে গণধর্ষণের পর যৌনাঙ্গে রড ঢুকিয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে মন্দিরের পুরোহিত ও তার দুই সাগরেদের বিরুদ্ধে। ভেঙে দেওয়া হয়েছে মহিলার পাঁজর।

উত্তরপ্রদেশের পুলিশের বিরুদ্ধে এমন ঘটনায় তদন্তে গাফিলতির অভিযোগ উঠেছে।তবে পরে স্থানীয় পুলিশ ফাঁড়ির এসএইচও-কে সাসপেন্ড করা হয়। গ্রেপ্তার হয়েছে দুই অভিযুক্ত।

গত রবিবার বিকেল পাঁচটা নাগাদ স্থানীয় মন্দিরে পুজো দিতে গিয়েছিলেন বদায়ুন জেলার উঘইতি গ্রামের অঙ্গনওয়াড়ি কর্মী। সন্ধে গড়িয়ে রাত হলেও তিনি আর বাড়ি ফেরেননি। রাত সাড়ে ১১টা নাগাদ তাঁকে বাড়ির দরজায় ফেলে দিয়ে চম্পট দেয় তিন অভিযুক্ত। নির্যাতিতার ছেলের অভিযোগ, পুরোহিত ও তাঁর সাগরেদরা মায়ের উপর অকথ্য অত্যাচার করেছে।

ময়নাতদন্তের রিপোর্ট বলছে, ধর্ষণের সময় মহিলার যৌনাঙ্গে রড ঢুকিয়ে দেয় অভিযুক্তরা।ভারী পাথরের আঘাতে বুক ও পাঁজরের হাড়ও ভেঙে দেওয়া হয়েছিল। অতিরিক্ত রক্তপাতের জেরেই সেদিন রাতেই হাসপাতালে নির্যাতিতার মৃত্যু হয়। নির্যাতিতার পরিবার পুলিশের বিরুদ্ধে তদন্তে গড়িমসির অভিযোগ এনেছে।

close