মমতার সরকারের ভুয়সী প্রসংশায় বিজেপি নেত্রী!

অদিতি সরকার: রাজনৈতিক মতাদর্শ সম্পূর্ণ আলাদা থাকা সত্ত্বেও মকর সংক্রান্তিতে গঙ্গাসাগরে পুণ্যস্নানের পর বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রশংসায় পঞ্চমুখ বিজেপি নেত্রী উমা ভারতী। তিনি জানিয়েছেন, রাজ্য সরকারের ব্যবস্থাপনায় খুব খুশি তিনি। চিঠি লিখে গঙ্গাসাগর ভ্রমণের অভিজ্ঞতার কথা মুখ্যমন্ত্রীকে জানাবেন উমা, এমনটাই সূত্রের খবর।

শুক্রবার দুপুরে গঙ্গাসাগরে পুণ্যস্নান সারেন উমা। তিনি জানিয়েছেন, “২০১৯ সালে গঙ্গোত্রী থেকে গঙ্গাসাগর পর্যন্ত আমি একটি যাত্রা শুরু করেছিলাম। তবে তার পরের বছর আমার পা ভেঙে যায়। আর তার পরের বছর করোনা পরিস্থিতি তৈরি হয়। তাই আমার সেই যাত্রা অনেকটাই পিছিয়ে গিয়েছে। গঙ্গোত্রী গোমুখ থেকে মা গঙ্গাকে এনে গঙ্গাসাগরে আমি মেলবন্ধন করলাম এবার। আমি খুব আনন্দিত। মা গঙ্গা সকলকে ভাল রাখবেন।” এরপরই তাঁকে প্রশ্ন করা হয় ব্যবস্থাপনা কেমন? জবাবে মুখ্যমন্ত্রীর ঢালাও প্রশংসা করেন উমা। তিনি বলেন, “দারুণ ব্যবস্থাপনা। আমার খুব ভাল লেগেছে।”

প্রসঙ্গত, রাজ্য হু হু করে বাড়ছে দৈনিক করোনা সংক্রমণ। এই পরিস্থিতিতে শর্তসাপেক্ষে গঙ্গাসাগর মেলার অনুমতি দিয়েছে হাইকোর্ট। আদালতের নির্দেশ অবশ্যই মানতে হবে বলেই বারবার পুণ্যার্থীদের কড়া বার্তা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। মকর সংক্রান্তিতে প্রায় ফাঁকা গঙ্গাসাগর। মেলা থেকে উধাও সাধুসন্ত ও তীর্থযাত্রীরা। নাগা সাধুদের আখড়াগুলিতেও ভিড় নেই একেবারেই। নাগা বাবা নিত্যানন্দ গিরি জানিয়েছেন, “এত খরচ করে গঙ্গাসাগরে আসার পরে ফিরব কীভাবে সেটাই বুঝতে পারছি না। কারণ, ফেরার খরচাটুকুও এখন আমাদের কাছে নেই।”

close