সংসদে MSP আইনের দাবীতে সরব বিরোধীরা

জোনাকি পণ্ডিত: সোমবার থেকেই শুরু হতে চলেছে সংসদের অধিবেশন। প্রথম দিনেই কেন্দ্রের তরফ থেকে কৃষি আইন প্রত্যাহার বিল পেশ করা হবে। লোকসভায় পাশ হওয়ার পর বিলটি রাজ্যসভায় পেশ করা হবে। যদিও বিরোধীরা কৃষি পণ্যের ন্যূনতম সমর্থন মূল্যের (MSP) আইনের জন্য সরকারকে চাপ দেওয়ার পরিকল্পনা করছে।

শুক্রবার রাজ্যসভার সদস্যরা তিনটি ‘কৃষি আইন বাতিল বিল ২০২১’ প্রচার করা হয়েছিল। হাজার হাজার কৃষক গত এক বছর ধরে এই তিনটি আইনের বাতিলের দাবিতে প্রতিবাদ করছে। বেশ কয়েকটি কৃষক ইউনিয়ন আবার MSP আইনের জন্য চাপ ও দিয়েছে। রবিবার বিরোধী দলগুলি অধিবেশনের আগে সরকারের ডাকা সর্বদলীয় বৈঠকে MSP-র জন্য আইনি সমর্থনের বিষয়টি উত্থাপন করেছে। বিরোধী দলগুলি দাবি,এই আইনের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ চলাকালীন মারা যাওয়া কৃষকদের পরিবারের সদস্যদের ক্ষতিপূরণ দিতে হবে।

তৃণমূল কংগ্রেস নেতা সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায় এবং ডেরেক ও’ব্রায়েন এমএসপি এবং লাভজনক পাবলিক সেক্টর ইউনিটগুলির বিনিয়োগের বিষয়ে এই আইন আনার বিষয়টি উপস্থাপন করেছেন। তবে বৈঠক চলাকালীন AAP নেতা সঞ্জয় সিং বেরিয়ে যান। তিনি দাবি করেন, তাকে কৃষকদের বিশেষত এমএসপি সম্পর্কিত সমস্যাগুলির বিষয়ে বলার অনুমতি দেওয়া হয়নি।

বিজেপি এবং প্রধান বিরোধী দল কংগ্রেস তাদের সাংসদদের অধিবেশন চলাকালীন সংসদে সকলকে উপস্থিত থাকার জন্য হুইপ জারি করেছে। কংগ্রেস সোমবার বিরোধী দলগুলির একটি সভা ডেকেছে। তবে টিএমসি, এনসিপি এবং আপ এই বৈঠকে যোগদান নাও করতে পারে। কৃষি বিল বাতিল ছাড়াও মোট ২৫টি ড্রাফট লেজিস্লেশনের লিস্ট করেছে সরকার। ক্রিপ্টোকারেন্সি ব্যান, ডেটা প্রটেকশন বিল,ত্রিপুরার এসসি এবং এসটি আমেন্ডমেন্ট বিল সহ অনেকগুলি বিল নিয়েই এই অধিবেশনে আলচনা হতে পারে বলে সূত্রের খবর।

close