লাবুশানের ‘পারফেক্ট ব্যাটারের’ তালিকায় সচিন-কোহলি

জোনাকি পণ্ডিত: শেষ তিন বছরে নিজেকে দারুণ ভাবে প্রতিষ্ঠিত করেছেন মার্নাস লাবুশানে । এই মুহূর্তে তিনি বিশ্বের নম্বর ওয়ান টেস্ট ব্যাটার। ২০১৮ সালে ক্যাঙারু বাহিনীর হয়ে টেস্ট অভিষেককারী লাবুশানের এখন ৬টি সেঞ্চুরি ও ১২টি ফিফটি রয়েছে। ২৭ বছরের এই দুদে ক্রিকেটার ২১টি টেস্ট ম্যাচ খেলে ২১১৪ রান করেছেন। ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে চতুর্থ অ্যাশেজ টেস্টের জন্য লাবুশানে প্রস্তুতি নিচ্ছেন। বুধবার থেকে ম্যাচ শুরু সিডনিতে। তার আগে লাবুশানে এক সাক্ষাৎকারে তাঁর ‘পারফেক্ট ব্যাটার’-এর তালিকা শোনালেন। সেখানে রয়েছেন ভারতের দুই মহাতারকা সচিন তেন্ডুলকর ও বিরাট কোহলি।

লাবুশানে জানান, “আমি শুরুতেই বলব সচিন তেন্ডুলকরের স্ট্রেইট ড্রাইভের কথা। যে শট সবাই দেখতে ভালবাসে। যেমন মুচমুচে তেমনই খাঁটি। এরপর বলব রিকি পন্টিংয়ের ট্রেডমার্ক পুল শটের কথা। যা সবাই দেখতে ভালবাসে। আমি বেছে নেব বিরাট কোহলির কভার ড্রাইভ। ও যেভাবে খেলে, বলে যে প্রাণশক্তির সঞ্চার করে তা অসাধারণ। কেভিন পিটারসেনের ক্রিজে আগ্রাসন ও লেগ-সাইটে নেওয়া শটগুলো ভাবায় আমায়। পিটারসেন অনেকটা কোহলির মতো।”

 

এছাড়াও লাবুশানের তালিকায় রয়েছেন স্টিভ স্মিথ , জ্যাক কালিস , অ্যান্ড্রিউ সাইমন্ডস ও কুমার সঙ্গকারাও। লাবুশানে বলেন, “স্টিভ স্মিথের রানের খিদে, দায়বদ্ধতা ও নিজেকে মানিয়ে নেওয়ার কথা আমাকে বলতেই হবে। জ্যাক কালিসের ধৈর্য্য, ক্রিজে থাকার ক্ষমতা, সাইমন্ডসের সেঞ্চুরির পর ওই লাফিয়ে জড়িয়ে ধরা। অসাধারণ লাগত। আমি বাঁ-হাতিদের কথা বললেই হেডেনের কথা বলব। ওই অফ-ড্রাইভ ভোলা যায় না। কুমার সঙ্গকারার থেকে খাঁটি কভার ড্রাইভ আর কাউকে নিতে দেখিনি। জাস্টিন ল্যাঙ্গারের কাট শট অনেকটা স্কোয়ার ড্রাইভের মতো লাগত। মাইক হাসির কভার ড্রাইভ ও পুল শটও দুর্দান্ত। অ্যালেস্টার কুকের বড় রান করার ক্ষমতাও ছিল দারুণ।”

 

 

 

close