সাফল্যের মুকুট ভারতের মাথায়, ইতিহাস গড়লো যশ ধূলরা!

জোনাকি পণ্ডিত: যুব বিশ্বকাপ চ্যাম্পিয়ন ভারতের। ওয়েস্ট ইন্ডিজের মাঠে এক ইতিহাস গড়লো ভারত। অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে ভারতের মাথায় উঠলো সাফল্যের মুকুট। ইংল্যান্ডকে ৪ উইকেটে হারিয়ে পঞ্চমবারের জন্য ভারতীয় বিশ্বকাপ চ্যাম্পিয়ন ভারতীয় অনূর্ধ্ব-১৯ দল। তবে কোহলি, উন্মুক্ত চাঁদ, শুভমন গিল, পৃথ্বী শ’দের সঙ্গে এক সারিতে রেখেই বাজিমাত করলেন যশ ধূল, শাইক রশিদ, রাজ বাওয়ারা।

শনিবার অ্যান্টিগায় টসে প্রথমে ফিল্ডিং করার চান্স পায় ইংল্যান্ড অনূর্ধ্ব-১৯ দল। তবে প্রথমেই ব্যাট ধরে নিয়ে শুরুটা ভাল হয়নি ইংল্যান্ডের। ইনিংসের একেবারে শুরুতেই ইংল্যান্ডকে ধাক্কা মারে বাংলার পেসার রবি কুমার।এরপর ইংরেজ শিবিরে আঘাত হানেন রাজ বাওয়া। এই দুই ধাক্কা সামলাতে গিয়ে নাস্তানাবুদ হয়ে যায় ইংরেজ ক্রিকেটাররা। এরপর মাত্র ৯১ রানে ৭ উকেট পড়ে যায় ইংল্যান্ডের। সেখান থেকে অষ্টম উইকেটের খেলার মোড় কিছুটা ঘোরায় ইংল্যান্ডের দিকে। জেমস রিউ এবং জেমস সেলসের দুই জুটি বেশ কিছুটা সামলায় দলকে। এরপর ৪৪. ৫ ওভারে ইংল্যান্ডরা অল-আউট হয়ে যায় ১৮৯ রানে। জেমস রিউ করেন ৯৫ রান। এদিকে ভারতীয় দলের অন্যতম খেলোয়াড় রাজ বাওয়া মাত্র ৩১ রান দিয়ে পাঁচ উইকেট নেন। রবি কুমার নেন ৪ উইকেট।

তবে ব্যাট ধরে ভারতেরও শুরুটা ভালো হয়নি। অধিনায়ক ধূল এবং হরনূর সিং করেন যথাক্রমে ১৭ এবং ২১ রান। কিন্তু এরপরই খেলার হাল ধরেন শাইক রশিদ, নিশান্ত সাধু এবং রাজ বাওয়া। শাইক ঊর্ধ্বশ্বাসে করলেন অর্ধশতরান। বলের পর ব্যাট হাতেও ৩৫ রানের ইনিংসে খেলার মোড় ঘুরিয়ে দেন রাজ।তবে ভারতকে জয়ের লক্ষ্য পৌঁছে দিতে যার জুড়ি মেলা ভার, তিনি নিশান্ত সিন্ধু। তিনি এদিন ৫০ রানের অনবদ্য ইনিংস খেলে ভারতকে সাফল্যের চূড়ায় পৌঁছে দেন।

এই নিয়ে পাঁচবার রেকর্ড গড়ল ভারত। অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপের চ্যাম্পিয়নে নাম উঠলো ভারতের।   এবার ইতিহাসের খাতায় যশ ধূলরা। রাজ বাওয়া হয়েছেন ফাইনালে ম্যাচের সেরা। পাশাপাশি বাংলার রবি কুমার, নিশান্ত সিন্ধুূরাও টুর্নামেন্টে অনবদ্য নজর কেড়েছিলেন। দলের নেতা যশ ধুল তো আগামী দিনের তারকা হবার আভাস দিয়েছেন। তবে ইতমধ্যেই ভারতীয় বোর্ডের সচিব জয় শাহ রাতেই ট্যুইট করে ঘোষণা করেন, ‘দলের প্রতিটি ক্রিকেটারকে ব্যক্তিগতভাবে দেওয়া হবে ৪০ লক্ষ টাকা, আর কোচসহ সাপোর্ট স্টাফদের দেওয়া হবে ২৫ লক্ষ টাকা।’

close