এবার নতুন রূপে আবির্ভূত হচ্ছে করোনাভাইরাস!

জোনাকি পণ্ডিত: নতুন রূপে আবির্ভাব নিতে চলেছে করোনা ভাইরাস। দক্ষিণ আফ্রিকায় করোনাভাইরাসের নতুন রূপ চিহ্নিত করে রাজ্যগুলিকে সতর্ক করল কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রক। এই বিষয়টি নিয়ে স্বাস্থ্য মন্ত্রকের সচিব রাজেশ ভূষণ সব রাজ্য এবং কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলিকে একটি চিঠি পাঠিয়েছেন। সেখানে করোনার এই নতুন রূপে জিনের চরিত্রবদলকে ‘খুব বিরল সমাবেশ’ বলে উল্লেখ করেছে।

রাজ্যগুলিকে দেওয়া কেন্দ্রের ওই চিঠিতে লেখা, “করোনার এই নতুন রূপ বহু বার জিনের বিন্যাস বদলেছে। আন্তর্জাতিক যাত্রা, ভিসার কড়াকড়ি এখন অনেকটাই শিথিল করা হয়েছে। এই পরিস্থিতিতে ভাইরাসের নতুন রূপ জনস্বাস্থ্য নিয়ে উদ্বেগ তৈরি করতে পারে।” প্রথমে বত্‍সোয়ানায়, পরে দক্ষিণ আফ্রিকা এবং হংকংয়ে করোনা ভাইরাসের ‘আরও ভয়ঙ্কর’ এই রূপের হদিশ মিলেছে। ভাইরোলজির পরিভাষায় যার নাম – বি.১.১৫২৯। বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন, অন্তত ৩২ বার স্পাইক প্রোটিন বদলে করোনা ভাইরাসের এই রূপ তৈরি হয়েছে। তবে যে সব দেশে করোনা ভাইরাসের নতুন রূপের হদিশ মিলেছে সে সব দেশ থেকে আসা ব্যক্তিদের উপর নজর দারী চালানোর নির্দেশ দিয়েছে কেন্দ্র। চিঠিতে লেখা হয়েছে, “ঝুঁকিপূর্ণ দেশ থেকে ভারতে আসা ব্যক্তিদের উপর কঠোর ভাবে স্ক্রিনিং এবং পরীক্ষা করতে হবে। এবং এই সব ব্যক্তিদের সংস্পর্শে আসা সকলের উপরেও নজর রাখতে হবে।”

সেইসাথে দক্ষিণ আফ্রিকার করোনাভাইরাসের এই নতুন রূপের সন্ধান কারও শরীরে পাওয়া গেলে তার নুমনা আইএনএসএসিওজি জিনোম সিকোয়েন্সিং পরীক্ষাগারে পাঠানোর নির্দেশ রাজ্য মুখ্যসচিব, স্বাস্থ্য আধিকারিকদের দিয়েছেন রাজেশ ভূষণ।

close