ত্রিপুরায় ভোটগ্রহণ প্রক্রিয়াকে ঘিরে তুমুল অশান্তি!

জোনাকি পণ্ডিত: আজ ত্রিপুরায় পুরভোট। সকাল থেকেই চলছে ভোটগ্রহণ প্রক্রিয়া। ভোট শুরুর আগেই বিভিন্ন জায়গা শুরু হয় অশান্তি। বিজেপির ওপর অভিযোগের আগুল তুলছে বিরোধী দল। তবে গেরুয়া শিবিরের দাবি, ভোট হচ্ছে উত্‍সবের মেজাজে। অন্যদিকে, বিলোনিয়ায় অবাধে ছাপ্পা ও বুথ দখলের অভিযোগ তুলল সিপিএম। ফেসবুকে সেই ভিডিও পোস্টও করেছে বামেরা। তবে বিলোনিয়ার বিজেপি বিধায়ক অরুণচন্দ্র ভৌমিকের দাবি, ভোটে হারবে জেনে মিথ্যা অভিযোগ করছে।

আগরতলা পুরসভার ৫১ নম্বর ওয়ার্ডের তৃণমূল প্রার্থী তপন বিশ্বাস আক্রান্ত হয়েছেন। বিজেপি আশ্রিত গুন্ডা বাহিনীর বিরুদ্ধে হামলার অভিযোগ তুলেছেন তিনি। তপন বিশ্বাসের চোখে আঘাত লাগে। তাঁর অভিযোগ, “আমার চোখে ঘুসি মারা হয়। বেল্ট দিয়েও মারধর করা হয়। পুলিশ কোনও ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি।” তবে বিজেপির তরফ থেকে এই বিষয়ে এখনও প্রতিক্রিয়া মেলেনি।

পাশাপাশি আগরতলা পুরসভার ৪০ নম্বর ওয়ার্ডে তৃণমূল প্রার্থীকে হুমকি দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ ওঠে। তৃণমূল প্রার্থী সংহিতা ব্যানার্জি জানান, “তাঁর পোলিং এজেন্টকে অপহরণের হুমকি দেওয়া হয়েছে। একই সঙ্গে তাঁকে এবং তাঁর স্বামীকে মারধরের হুঁশিয়ারিও দিয়েছে বিজেপির গুন্ডারা।” তবে বিজেপি বিধায়ক সুদীপ রায় বর্মন আক্রান্ত প্রার্থীদের পাশে এসে দাঁড়ালেন। বিপ্লব দেবকে কটাক্ষ করে তিনি বলেন, “ভয় দেখিয়ে ভোট না করলেও পারতেন।” পরিস্থিতি সামাল দিতে সুপ্রিম কোর্ট প্রতিটি বুথে আরও বেশি করে কেন্দ্রীয় বাহিনী পাঠানোর নির্দেশ দেয়।

close