নৃশংস ভাবে খুন স্বামীকে!

জোনাকি পণ্ডিত: দাম্পত্য কলহের জেরে স্বামীকে খুন করলো স্ত্রী। অভিযোগ, মাথায় মুগুর দিয়ে আঘাত করে স্বামীকে নৃশংস ভাবে খুন করে স্ত্রী। ঘটনাটি ঘটেছে উত্তর ২৪ পরগনার দেগঙ্গার চ্যাংদানা গ্রামে। মৃতের নাম শেখ আলম। বয়স বছর ৩৭। ইতমধ্যেই অভিযুক্ত স্ত্রী মুসকান বিবিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

সূত্রের খবর, নিহত শেখ আলমের পাখির ব্যবসা। শনিবার রাতে স্বামী-স্ত্রী মধ্যে অশান্তি শুরু হয়। সেই সময় দম্পতির ছেলে ও মেয়ে বাড়িতে ছিল না।তবে অভিযোগ কথা কাটাকাটি শেষে হাতাহাতি পর্যন্ত পৌছে যায়। এরপরই বাড়ির উঠোন পড়ে থাকা মুগুর নিয়ে এসে স্বামী শেখ আলমের মাথায় এলোপাতাড়ি মারতে থাকে অভিযুক্ত মুসকান বিবি। মুগুরের আঘাতে রক্তাক্ত অবস্থায় মাটিতে লুটিয়ে পড়েন শেখ আলম। স্বামী মারা গেছে ভেবে রক্তাক্ত অবস্থায় তাকে ফেলে রেখে, স্থানীয় লেবুতলা স্টেশনে পালিয়ে যায় মুসকান।

তারপর একপ্রকার ফাঁদে ফেলেই ধরা হয় মুসকানকে। এক আত্মীয় মুসকানকে ফোন করে জানায়, শেখ আলম বেঁচে আছেন। আত্মীয়ের ফোন পেয়ে তখন তড়িঘড়ি বাড়ি ফিরে আসে মুসকান। আর ঠিক সেইসময়ই বাড়ি থেকে পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে। ওদিকে রক্তাক্ত অবস্থায় শেখ আলমকে বিশ্বনাথপুর গ্ৰামীণ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। কিন্তু সেখানে চিকিৎসক তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। এখন কী কারণে এই খুন? খুনের পিছনে দাম্পত্য কলহ না অন্য কোনও বিবাদ লুকিয়ে আছে, তা খতিয়ে দেখে তদন্ত শুরু করেছে দেগঙ্গা থানার পুলিশ।

close